ঢাকা
১৫ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
২রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ঘন কুয়াশা আর তীব্র শীতে বিপর্যস্ত জনজীবন

ঝিনাইদহে ঘন কুয়াশা আর তীব্র শীতে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে শীত কিছুটা কমলেও বিকেলের পর থেকে আবার বাড়ে শীত ও বাতাসের তীব্রতা। শীতের কারণে দুর্ভোগে পড়েছেন শ্রমজীবী, পথচারী থেকে শুরু করে নানা বয়সী মানুষ। বিশেষ করে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ দুর্ভোগের মাত্রা আরও বাড়িয়ে দিচ্ছে। বৃহস্পতিবার (১৯ ডিসেম্বর) সকালে ঘন কুয়াশার কারণে মহাসড়কে হেডলাইট জ্বালিয়ে বাস, ট্রাকসহ সব ধরনের যানবাহন চলাচল করতে দেখা গেছে।

ঝিনাইদহ শহরের পথচারী রহমান মিয়া বলেন, কয়েকদিনের তুলনায় বুধবার (১৮ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা থেকে শীত অনেক বেশি পড়ছে। শীতের সঙ্গে বাতাসও হচ্ছে। শীতের কাপড় গায়ে দিয়েছি তবুও শীত যাচ্ছে না।

সদর উপজেলার মধুপুর গ্রামের কৃষক তরিকুল বলেন, খুব শীত, সকালের দিকে মাঠে কাজ করতে যেতে খুবই কষ্ট হচ্ছে। গরীব মানুষ ভালো কাপড়-চোপড়ও কিনতে পারি না। আমাদের খুবই কষ্ট ভাই।

রিকশাচালক মুজাপ বলেন, কয়েক দিনের তুলনায় গত দুদিন ধরে শীত একটু বেশিই মনে হচ্ছে। শীতের কারণে সকাল ও সন্ধ্যায় রিকশা চালাতে সমস্যা হচ্ছে।

বাসচালক আব্দুর রহমান বলেন, সকালে ঘন কুয়াশা আর বাতাসের কারণে শীত বেশি অনুভব হচ্ছে। প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে লোকজন খুব একটা বের হচ্ছে না। তীব্র শীতের কারণে যাত্রী কম থাকায় গাড়ি চলাচলও কমে গেছে। ঘন কুয়াশায় কারণে সকালে ও রাতে গন্তব্যে পৌঁছাতে প্রায় দ্বিগুণ সময় লাগছে।

ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ বলেন, কিছুটা হলেও দরিদ্র মানুষের শীতের কষ্ট নিবারণের চেষ্টা চালাচ্ছি। সরকারের পক্ষ থেকে দেয়া কম্বল বিতরণ করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন

গোবিন্দগঞ্জে কাভার্ডভ্যানচাপায় নিহত ৪
আল্লামা শফী হত্যার দৃষ্টান্তমূলক বিচার হোক: তথ্যমন্ত্রী
পহেলা বৈশাখে করোনায় ৯৬ জনের মৃত্যু
শামসুজ্জামান খান আর নেই
লকডাউনে মানতে হবে ১৩ নির্দেশনা
ঘরে ঘরে সচেতনতার দুর্গ গড়ে তুলুন: কাদের
করোনাকালে আবার আসলো উৎসবহীন পহেলা বৈশাখ
শুরু হল ‘কঠোর লকডাউন’