ঢাকা
১৩ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
৩০শে চৈত্র, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

আজ বাংলা একাডেমির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী

মাতৃভাষা আন্দোলনের গৌরবকে তুলে ধরে বাংলা ভাষার সার্বিক পরিচর্যার উদ্দেশ্যে প্রতিষ্ঠিত হয় বাংলা একাডেমি। একাডেমির আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয় ১৯৫৫ সালের ৩ ডিসেম্বর। সেদিন বর্ধমান হাউসের বটতলায় তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের মুখ্যমন্ত্রী আবু হোসেন সরকার বাংলা একাডেমির উদ্বোধন করেছিলেন। জাতির আবেগ, শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় সিক্ত এ প্রতিষ্ঠান নানা চড়াই-উতরাই পেরিয়ে সেই উদ্দেশ্যে কাজ করে চলেছে। আজ ৩ ডিসেম্বর এই প্রতিষ্ঠানের ৬৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী।
প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে দিনব্যাপী নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে দিনটি উদযাপন করা হবে। আজ সকাল সাড়ে ৯টায় বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে জাতীয় পতাকা ও প্রতিষ্ঠানটির পতাকা উত্তোলন করা হবে। পরে ১০টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ভাষা আন্দোলনের
অমর শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করা হবে। এর পর পৃথকভাবে শ্রদ্ধা জানানো হবে একাডেমির স্বপ্নদ্রষ্টা ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহর সমাধিতেও।
বেলা ১১টায় একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে ‘সবার আগে সংস্কৃতি, সবার সঙ্গে সংস্কৃতি’ শীর্ষক বাংলা একাডেমি প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী বক্তৃতা-২০২০ প্রদান করবেন অধ্যাপক সৈয়দ মোহাম্মদ শাহেদ। স্বাগত ভাষণ দেবেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক হাবীবুল্লাহ সিরাজী। সভাপতিত্ব করবেন বাংলা একাডেমির সভাপতি অধ্যাপক শামসুজ্জামান খান।

আরও পড়ুন

লকডাউনে ৮টি পণ্যপরিবহন ট্রেন চলবে
এডেন সাগরে নৌকা ডুবে ৩৪ শরণার্থীর মৃত্যু
সড়ক-মহাসড়কে ভয়াবহ যানজট
২০৩০ সালে রমজান মাস হবে দুইটি
এটিএম বুথ থেকে তোলা যাবে ১ লাখ টাকা
তারাবির নামাজে ২০ জনের বেশি নয়
ধৈর্যের সঙ্গে ক্রান্তিকাল অতিক্রমের আহ্বান তাপসের
লাইফ সাপোর্টে শামসুজ্জামান খান