ঢাকা
২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

কুড়িগ্রামে মাকে বাঁচাতে গিয়ে ছেলে খুন

মাকে বাঁচাতে গিয়ে প্রতিবেশীর লাঠির আঘাতে প্রাণ গেল জাহিদ হাসান (১৮) নামে এক কিশোরের। এ ঘটনায় আবুল কাশেমকে নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বুধবার (১৪ জুলাই) কুড়িগ্রাম সদরের ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নে এ মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে।

পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিবেশী কাজল খান কাশেম (৩০) গাছের ডাল দিয়ে জাহিদের মা ছলিমা খাতুন (৪৮)কে রাস্তায় ফেলে পেটায়। এ সময় পূত্র জাহিদ হাসান মাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে তাকেও বেধড়ক মারপীট করায় তার টিউমারে আঘাত লেগে গুরুত্বর আহত হয়। পরে মা ও ছেলেকে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হলে দুপুরের দিকে জাহিদ হাসান চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ভোগডাঙ্গা ইউনিয়নের কাচিচর এলাকার ৭, ৮ ও ৯নং সংরক্ষিত ওয়ার্ডের মহিলা কাউন্সিলর ছলিমা বেগমের কাছে বুধবার সকালে এক মা ও তার মেয়ে ত্রাণের জন্য আসে। এসময় বাড়ি সংলগ্ন রাস্তায় কাউন্সিলরের সাথে ত্রাণের তালিকা নিয়ে ওই দুই মহিলার বাক-বিতণ্ডা হয়। এই রাস্তা নিয়ে প্রতিবেশী কাজল খান কাশেমের সাথে দন্ধ ছিল। চিৎকার শুনে কাজল খান কাশেম মনে করেছিল তাদেরকে উদ্দেশ্য করে কাউন্সিলর ছলিমা চিৎকার করছে।

আরও পড়ুন

একদিনে ৩ ভাইয়ের মৃত্যু!
দাফনের ১৮ দিন পর লাশ উত্তোলন
ট্রেনের ধাক্কায় দুমড়েমুচড়ে গেল অটোরিকশা
নবজাতকের ভেতরে আরেক শিশু!
৩৭ জেলেকে ৯০ হাজার টাকা জরিমানা
বড়াইগ্রামে বজ্রপাতে কৃষকের মৃত্যু
বরগুনায় অনুষ্ঠিত হলো বোরো ধান কর্তন “মাঠ দিবস”
তাড়াশে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২